চাচা খুব দুষ্টু ছোট্ট ছেলে

এটিও একটি Bangla Rupkothar Golpo এই গল্পটিতে একটি দুষ্টু ছেলের জীবনের কিছু ঘটনার সম্মন্ধে লেখা রয়েছে, যা আপনার ছেলেদের অবশ্যই ভালো লাগবে এবং শেষে তার যে পরিণতি হয়েছিল সে সম্বন্ধে আপনার ছেলে মেয়েদের উদাহরণ দিতে পারেন।
গল্পের নাম :– চাচা খুব দুষ্টু ছেলে
গল্পের লেখক :– UNKNOWN ( SOURCE YOUTUBE )


চাচা খুব দুষ্টু ছোট্ট ছেলে । সে সবসময় একা একাই ছুটোছুটি করতে পছন্দ করত, যে কারণে তার মা খুব চিন্তায় থাকতেন । চাচা, তোমার একা একা এদিক ওদিক ঘোরা ঠিক হচ্ছে না। তুমি হারিয়ে যেতে পারো। তুমি সবসময় আমার কাছাকাছি থাকবে। ঠিক আছে? ওহ মা! তুমিও কত চিন্তা করো! চাচার মা চাইতেন সে যেন সবসময় সাবধানে থাকে। কিন্তু, চাচা প্রতিদিনই সেইসব কথা ভুলে গিয়ে একা একাই ঘুরতে বেরিয়ে পড়ত। চাচা, তুমি এদিকে চলে এসো। একদিন, চাচার শিক্ষিকা, মিস ডরোথি সব বাচ্চাদের বাড়ির কাজ করতে দিলেন বাড়ি থেকে করে নিয়ে আসতে। বাচ্চারা আজ তোমাদের কাজ হল বাড়ি গিয়ে তোমাদের বাবা মার ফোন নাম্বার গুলো মুখস্ত করা। যাতে তোমরা যদি কখনও হারিয়ে যাও, তাদের ফোন করতে পারবে আর কোথায় আছ সেটা বলতে পারবে। সব বাচ্চারা বাড়ি ফিরে তাদের বাবা মায়ের ফোন নম্বরগুলো জেনে নিল। ৪, ১, ৫, ৩… চাচা যদিও তার বাবা মায়ের ফোন নম্বর নেওয়ার ব্যাপারে মাথাই ঘামাল না। তার বদলে সে তার নতুন গাড়ি নিয়ে খেলতে লাগল… তার কিছু দিন পর চুচু আর চাচা একদিন পার্কে খেলছিল। ঠিক সেই সময়, চাচা দেখতে পেল একটা বেলুন উড়ে যাচ্ছে। সে সঙ্গে সঙ্গে ওটার পিছনে ছুটতে শুরু করে দিল। ওহ, দেখো! একটা বেলুন আমি ওটা ধরতে যাচ্ছি। ফিরে এসো, চাচা! কিন্তু চাচা, চুচুর কথা শুনলই না। সে বেলুনের পিছন পিছন ছুটতে শুরু করলো, এমনকি সে খেয়ালও করল না যে সে কোথায় যাচ্ছে। আমি ঐ বেলুনটা ধরতে যাচ্ছি। কিছুক্ষণ পর, চাচা বুঝতে পারল, যে সে পথ হারিয়েছে। এটা কোথায় এলাম? এই রাস্তাটা তো অচেনা লাগছে। আমি এখানে আগে এসেছি বলে মনে হচ্ছে না। চাচা ভয় পেয়ে গেল। তখন সে একটা গাছের তলায় বসে কাঁদতে লাগল । এখন যদি আমার মাকে ফোন করতে পারতাম, কিন্তু আমি তো মার ফোন নম্বরও জানি না। চুচু এদিক ওদিক দেখতে লাগল, কিন্তু চাচাকে কোথাও খুঁজে পেল না। ভাগ্য ভাল সে তার কাকিমার বাড়ির খুব কাছেই ছিল এবং সে সেখান থেকে তার মাকে ফোন করে জানাল। হ্যালো? মা? আমি চুচু । সব ঘটনা শুনে চুচুর মা তক্ষনি গাড়ি নিয়ে বেরলেন। যখন তিনি পার্কে এলেন, চুচু গাড়িতে উঠল আর তাকে বলল কোথায় শেষ বার চাচাকে সে দেখেছিল। চাচা এই রাস্তা দিয়ে ছুটে গিয়েছিল। তাহলে ওইদিকেই ওকে খুঁজে দেখা যাক। গাড়িটা হর্ন দিতে দিতে ধীরে ধীরে রাস্তা দিয়ে এগোতে লাগল। চাচা সেই হর্নটা চিনতে পারল। এটা তো আমাদের গাড়ি মনে হচ্ছে! মা নিশ্চয়ই কাছাকাছি রয়েছে। চাচা উঠে দাঁড়াল আর গাড়ির দিকে তাকিয়ে চিৎকার করতে লাগল। মা! চুচু! আমি এখানে! চাচার ভাগ্যভাল, যে তার মা আর চুচু তাকে খুব তাড়াতাড়ি খুঁজে পেয়ে গেল। মা, ও দিকে দেখো! ঐ তো চাচা! যাক বাঁচা গেল! তখন চাচা, চুচু আর তার মাকে দেখে খুব খুশি হল। সে তাদের দুজনকে শক্ত করে জড়িয়ে ধরল। তোমাদের দেখে খুব ভাল লাগছে। আমি সত্যিই ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম। আমরা তোমায় দেখে দেখে খুব খুশি হয়েছি, চাচা। চাচা কথা দিল যে সে আর কক্ষনও একা একা কোথাও যাবে না। সে তার মায়ের ফোন নম্বরটা জেনে নিল, যাতে সে আবার কখনও হারিয়ে গেলে, তাকে ফোন করতে পারে। ৪, ১, ৫, ৩…! এক সময় একটা ছেলে ছিল যার নাম ছিল Cussly. সে ছিল খুবই দুষ্টু ছেলে। সে তার বন্ধুদের মারত, বিরক্ত করত, এবং তাদের সব জিনিস কেড়ে নিত। তার বন্ধুরা ছিল খুবই ভালো এবং ভদ্র, তাই তারা ওর জোর জুলুম মেনে নিত এই ভেবে যে ও একদিন নিশ্চয় পালটে যাবে। ওর কিছু বদ অভ্যাস ছিল, যেমন বই ছেঁড়া, জামা কাপড় ছড়ানো আর খেলনা ভাঙা। তাই ওর উচিত শিক্ষা পাওয়া খুব দরকার ছিল। এক রোদ ঝলমলে দিনে, ওর মা ওকে চেঁচিয়ে বললেন Cussly তোমার room দেখে একদম garbage – এর মত লাগেছে তোমার জামা কাপড়, খেলনা, বই সব মাটিতে গড়াগড়ি খাচ্ছে। আমি মেঝেটা পুরো পরিষ্কার দেখতে চাই। তোমার সব জিনিস জায়গা মত সাজিয়ে রাখো। কিছুক্ষণের পরেই তোমার ঘরে আসছি সব যেন পরিষ্কার থাকে। তুমি নিশ্চই আর বকা খেতে চাওনা তাই তো? আমার কথা কানে ঢুকছে? হ্যাঁ হ্যাঁ, সব শুনেছি আমি এখনই মেঝে থেকে সব তুলে রাখছি বাহ, খুব তাড়াতাড়ি করলে তো। এটা তোমার room বলে মনেই হচ্ছেনা। Good job Come on চলো দোকানে যাই আর একটা, ice cream খেয়ে আসি তোমার এই কাজের জন্য এটা একটা treat. মা, আমার খুব ক্লান্ত লাগছে, ঘুম পেয়েছে তোমার dinner ready তাড়াতাড়ি dinner টা সেরে নাও তারপর গিয়ে শুয়ে পড়ো। আচ্ছা ঠিক আছে। যাহ, ভুলেই গিয়েছিলাম যে সব কিছু বিছানার ওপর রাখা ছিল এবার নামো আমার বিছানা থেকে, আর যেখানে ছিলে সেখানে চলে যাও। Cussly নিজের বইগুলো কে মাটিতে ফেলল, খেলনা গুলো কে ছুঁড়ে ফেলে দিল, আর জামা কাপড় রেখে দিল খাটের তলায় এবার বিছানাটা আরামদায়ক হয়েছে যাই, আলো নিভিয়ে, ঘুমিয়ে পড়ি শুয়ে Cussly গভীর ঘুমে ডুবে যায় আর শুরু করে নাক ডাকতে। তারপর সে শুরু করে বিড়বিড় করতে, আর ঘুমের মধ্যেই ছটফট করতে। খেলনা moster truck – টা যেন তেড়ে এলো ওর পায়ে ধাক্কা মারতে। বইগুলো এসে ওর মাথায় বাড়ি মারতে শুরু করল। জামাগুলো সব জড়ো হয়ে ওর দম বন্ধ করে দিতে লাগল। খেলনা robot – টা ওর চুল ধরে টেনে ওর পেটের ওপর লাফাতে লাগল। সব শেষে ওপরের rack – এ থাকা বিরাট গল্পের বইটা ওর মাথায় এসে পড়ল দুম করে । খুব জোরে আওয়াজ হল। Cussly খাট থেকে গড়িয়ে মাটিতে পড়ে গেল। ওর ঘুম ভেঙে গেল, চেঁচাতে চেঁচাতে, ঘেমে ভয় পেয়ে। ওরেবাবা! কি ছিল ওটা! মনে হচ্ছে আমি একটা ভয়ানক স্বপ্ন দেখেছি এটা সত্যিই দুঃস্বপ্ন ছিল একটা। যাই গিয়ে সব কিছু জায়গা মত গুছিয়ে রাখি যেখানকার জিনিস সেখানে রেখে দিই বরং সেদিন থেকে ও নিজের ভুল বুঝতে পারল, আর ঠিক করল সবার সাথে ভালো ব্যবহার করবে। ও promise করল, যে ও নিজের বই আর খেলনা যত্ন করে রাখবে 

DISCLAIMER

এই গল্পটি আমাদের সাইটের দ্বিতীয় বাংলা রূপকথার গল্প, এর আগে আমাদের সাইট আরো একটি রূপকথার গল্প আমরা আপলোড করেছিলাম। এই গল্পটিও আমরা ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহ করে লিখিত আকারে দিয়েছি। আপনাদের যদি আমাদের এই আর্টিকেল বা পোস্টের সম্পর্কে কিছু বলার থাকে তাহলে তা আপনারা কমেন্ট করে জানতে পারেন।

Last Words

আপনাদের এই চাচা নামক দুষ্টু ছেলেটির Rupkothar Golpo টি কেমন লাগলো তা আমাদের অবশ্যই জানান। আর যদি আপনাদের এই গল্পটি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই এটি সকলের সাথে সেয়ার করবেন। আপনাদের যদি এইধরনের আরো গল্পের প্রয়োজন হই তাহলে আমাদের কমেন্ট করে জানান আমরা আপনাদের জন্য গল্প পোস্ট করে দেবো।

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।